০৪:২৮ পূর্বাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ১৩ জুন ২০২৪, ২৯ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ
                       

ত্বকে বয়সের ছাপ কমাবে যেসব খাবার

জারিন তাসনিম
  • প্রকাশ: ১২:৪৫:৩৭ অপরাহ্ন, রবিবার, ২১ অগাস্ট ২০২২
  • / ৬৭৩ বার পড়া হয়েছে

আনুশকা শর্মা


Google News
বিশ্লেষণ-এর সর্বশেষ নিবন্ধ পড়তে গুগল নিউজে যোগ দিন

বিশেষ শর্তসাপেক্ষে এবং স্বল্পমূল্যে এই ওয়েবসাইটটি সামাজিক কাজে নিয়োজিত ব্যক্তিবর্গ কিংবা বাণিজ্যিক প্রতিষ্ঠানের নিকট বিক্রি করা হবে।

ত্বকে বয়সের ছাপ পড়লে তা লুকানোর চেষ্টায় কত কী না করা হয়! কিন্তু মেকআপে মুখের দাগ লুকানো গেলেও বয়সের ছাপ লুকানো যায় না। আমাদের প্রতিদিনের কিছু ভুল অভ্যাস যেমন সানস্ক্রিন ব্যবহার না করা, পানি কম পান করা, চিনিযুক্ত খাবার বেশি খাওয়া, রাত জেগে থাকা ইত্যাদির কারণে দ্রুত ত্বকের বয়স বেড়ে যায়। আবার দূষণ, রোদ, ধুলোবালিও কম দায়ী নয়। ত্বকে বয়সের ছাপ পড়তে দিতে না চাইলে খেতে হবে কিছু খাবার। চলুন জেনে নেওয়া যাক।

কোলাজেনযুক্ত খাবার

ত্বক ভালো রাখার জন্য এই উপাদান বেশি গুরুত্বপূর্ণ। কোলাজেন হলো এক ধরনের প্রোটিন। এটি ত্বককে দৃঢ়, বলিরেখা মুক্ত এবং সুস্থ রাখে। বয়স বৃদ্ধির সঙ্গে সঙ্গে শরীরে কোলাজেন উৎপাদন কমতে থাকে। সে কারণে খাবারের মাধ্যমে এই ঘাটতি পূরণ করতে হবে। এক্ষেত্রে মাংসের ঝোল খুব উপকারী। এছাড়া ক্যালসিয়াম, পটাশিয়াম ও ম্যাগনেসিয়ামের মতো খনিজ পদার্থযুক্ত খাবার প্রতিদিন খেতে হবে।

প্রতিদিনের খাবারের তালিকায় রাখতে হবে পর্যাপ্ত সবুজ শাক-সবজি। সবুজ শাক-সবজিতে তাকে প্রায় সব ধরনের ভিটামিন ও পুষ্টি উপাদান। এসব খাবার দূষণ ও রোদের কারণে সৃষ্ট ক্ষতি থেকে ত্বককে রক্ষা করতে কাজ করে। তাই নিয়মিত সবুজ শাক-সবজি খেলে চেহারায় বয়সের ছাপ সহজে পড়ে না।

দই

বলিরেখা , ব্রণ কমাতে ও রোগ-প্রতিরোধ করতে দইয়ের জুড়ি নেই।দইয়ের মধ্যে রয়েছে ক্ষতিকর ব্যাকটেরিয়ারোধী উপাদান।যা রোগ-প্রতিরোধ পদ্ধতি নিয়ন্ত্রণ করে। প্রদাহরোধ করে বলিরেখা ও ব্রণ কমাতে সাহায্য করে।

উপকারী মসলা দারুচিনি। এটি সাধারণত রান্নার স্বাদ ও গন্ধ বাড়াতে ব্যবহার করা হয়। তবে দারুচিনির রয়েছে আরও অনেক কার্যকারিতা। কারণ এটি পলিফেনল সমৃদ্ধ। ত্বকের জন্য স্বাস্থ্যকর কোষ উৎপাদনকে দ্রুত বাড়িয়ে দেয় এই মসলা। তাই নিয়মিত দারুচিনি খেতে পারেন। এতে ত্বকে বয়সের ছাপ সহজে পড়বে না।

আদা ও মধু

আদা ও মধু দুটোই বেশ উপকারী। আদায় থাকে জিঞ্জেরেল যার রয়েছে প্রদাহরোধী বৈশিষ্ট্য। এটি ত্বকের ব্যাকটেরিয়া মেরে ফেলতে সাহায্য করে। আদার রস যদি মধুর সঙ্গে মিশিয়ে খান তবে সেটি বার্ধক্য ঠেকাতে দারুণভাবে কাজ করে। এটি পরিণত হয় প্রাকৃতিক অ্যান্টিব্যাকটেরিয়াল এবং অ্যান্টিফাঙ্গাল দ্রবণে। তাই বলিরেখা রোধ করা সহজ হয়।

মাশরুম

মাশরুম খাওয়ার অনেকগুলো উপকারিতার একটি হলো, এটি ত্বকে বয়সের ছাপ পড়া রোধ করে। কারণ মাশরুমে থাকে প্রচুর কপার। এটি ত্বকে প্রাকৃতিকভাবে উপস্থিত প্রোটিন, কোলাজেন এবং ইলাস্টিনকে সংশ্লেষিত এবং স্থিতিশীল করতে সহায়তা করে। তাই ত্বকে বয়সের ছাপ পড়তে দিতে না চাইলে নিয়মিত মাশরুম খান।

স্বাস্থ্যকর ফ্যাট

ভিটামিন এ, ডি, ই এবং কে ফ্যাট দ্রবণীয় ভিটামিন। ভিটামিন এ ত্বকের কোষ মেরামত করে ও কোলাজেন উৎপাদনকে স্থিতিশীল করে। এছাড়া অন্যান্য ফ্যাট-দ্রবণীয় ভিটামিন সূর্যের ক্ষতিকর রশ্মি থেকে ত্বককে রক্ষা করে। খাবারের তালিকায় স্যামন মাছ, অ্যাভোকাডো, আখরোট, ঘি, তিল, অলিভ অয়েল ইত্যাদি রাখলে বয়সের ছাপ সহজে পড়বে না।

মাছ

বলিরেখা কমাতে মাছ খাওয়া যেতে পারে।বলিরেখা, ব্রণ কমাতে ও রোগ-প্রতিরোধ স্যামন, সারদিন মাছ খেলে বেশ উপকার পাওয়া যায়। এগুলো ত্বক পুনর্গঠন ও ত্বকের বলিরেখা কমাতে সাহায্য করে।

অলিভওয়েল

অলিভওয়েলের মধ্যে ওমেগা তিন ফ্যাটি অ্যাসিড রয়েছে। পাশাপাশি রয়েছে আরো ভিটামিন ও পুষ্টি। আর এক্সট্রা ভারজিন অলিভ ওয়েলে (একধরনের অলিভওয়েল) রয়েছে ওলিক অ্যাসিড। এটি ত্বক আর্দ্র রাখে এবং বলিরেখা কমায়।

হলুদ

সুস্থ ও সুন্দর ত্বক ধরে রাখতে হলুদ বিশেষ ভূমিকা পালন করে।হলুদে রয়েছে অ্যান্টিঅক্সিডেন্ট উপাদান, যা স্বাস্থ্যকর ত্বক তৈরিতে হলুদ সাহায্য করে।

বিষয়:

শেয়ার করুন

মন্তব্য

Your email address will not be published. Required fields are marked *

আপনার তথ্য সংরক্ষিত রাখুন

লেখকতথ্য

জারিন তাসনিম

জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থী এবং স্বাধীন লেখক।

বিশেষ শর্তসাপেক্ষে এই ওয়েবসাইটটি সামাজিক কাজে নিয়োজিত ব্যক্তিবর্গ কিংবা বাণিজ্যিক প্রতিষ্ঠানের নিকট বিক্রি করা হবে।

ত্বকে বয়সের ছাপ কমাবে যেসব খাবার

প্রকাশ: ১২:৪৫:৩৭ অপরাহ্ন, রবিবার, ২১ অগাস্ট ২০২২

ত্বকে বয়সের ছাপ পড়লে তা লুকানোর চেষ্টায় কত কী না করা হয়! কিন্তু মেকআপে মুখের দাগ লুকানো গেলেও বয়সের ছাপ লুকানো যায় না। আমাদের প্রতিদিনের কিছু ভুল অভ্যাস যেমন সানস্ক্রিন ব্যবহার না করা, পানি কম পান করা, চিনিযুক্ত খাবার বেশি খাওয়া, রাত জেগে থাকা ইত্যাদির কারণে দ্রুত ত্বকের বয়স বেড়ে যায়। আবার দূষণ, রোদ, ধুলোবালিও কম দায়ী নয়। ত্বকে বয়সের ছাপ পড়তে দিতে না চাইলে খেতে হবে কিছু খাবার। চলুন জেনে নেওয়া যাক।

কোলাজেনযুক্ত খাবার

ত্বক ভালো রাখার জন্য এই উপাদান বেশি গুরুত্বপূর্ণ। কোলাজেন হলো এক ধরনের প্রোটিন। এটি ত্বককে দৃঢ়, বলিরেখা মুক্ত এবং সুস্থ রাখে। বয়স বৃদ্ধির সঙ্গে সঙ্গে শরীরে কোলাজেন উৎপাদন কমতে থাকে। সে কারণে খাবারের মাধ্যমে এই ঘাটতি পূরণ করতে হবে। এক্ষেত্রে মাংসের ঝোল খুব উপকারী। এছাড়া ক্যালসিয়াম, পটাশিয়াম ও ম্যাগনেসিয়ামের মতো খনিজ পদার্থযুক্ত খাবার প্রতিদিন খেতে হবে।

প্রতিদিনের খাবারের তালিকায় রাখতে হবে পর্যাপ্ত সবুজ শাক-সবজি। সবুজ শাক-সবজিতে তাকে প্রায় সব ধরনের ভিটামিন ও পুষ্টি উপাদান। এসব খাবার দূষণ ও রোদের কারণে সৃষ্ট ক্ষতি থেকে ত্বককে রক্ষা করতে কাজ করে। তাই নিয়মিত সবুজ শাক-সবজি খেলে চেহারায় বয়সের ছাপ সহজে পড়ে না।

দই

বলিরেখা , ব্রণ কমাতে ও রোগ-প্রতিরোধ করতে দইয়ের জুড়ি নেই।দইয়ের মধ্যে রয়েছে ক্ষতিকর ব্যাকটেরিয়ারোধী উপাদান।যা রোগ-প্রতিরোধ পদ্ধতি নিয়ন্ত্রণ করে। প্রদাহরোধ করে বলিরেখা ও ব্রণ কমাতে সাহায্য করে।

উপকারী মসলা দারুচিনি। এটি সাধারণত রান্নার স্বাদ ও গন্ধ বাড়াতে ব্যবহার করা হয়। তবে দারুচিনির রয়েছে আরও অনেক কার্যকারিতা। কারণ এটি পলিফেনল সমৃদ্ধ। ত্বকের জন্য স্বাস্থ্যকর কোষ উৎপাদনকে দ্রুত বাড়িয়ে দেয় এই মসলা। তাই নিয়মিত দারুচিনি খেতে পারেন। এতে ত্বকে বয়সের ছাপ সহজে পড়বে না।

আদা ও মধু

আদা ও মধু দুটোই বেশ উপকারী। আদায় থাকে জিঞ্জেরেল যার রয়েছে প্রদাহরোধী বৈশিষ্ট্য। এটি ত্বকের ব্যাকটেরিয়া মেরে ফেলতে সাহায্য করে। আদার রস যদি মধুর সঙ্গে মিশিয়ে খান তবে সেটি বার্ধক্য ঠেকাতে দারুণভাবে কাজ করে। এটি পরিণত হয় প্রাকৃতিক অ্যান্টিব্যাকটেরিয়াল এবং অ্যান্টিফাঙ্গাল দ্রবণে। তাই বলিরেখা রোধ করা সহজ হয়।

মাশরুম

মাশরুম খাওয়ার অনেকগুলো উপকারিতার একটি হলো, এটি ত্বকে বয়সের ছাপ পড়া রোধ করে। কারণ মাশরুমে থাকে প্রচুর কপার। এটি ত্বকে প্রাকৃতিকভাবে উপস্থিত প্রোটিন, কোলাজেন এবং ইলাস্টিনকে সংশ্লেষিত এবং স্থিতিশীল করতে সহায়তা করে। তাই ত্বকে বয়সের ছাপ পড়তে দিতে না চাইলে নিয়মিত মাশরুম খান।

স্বাস্থ্যকর ফ্যাট

ভিটামিন এ, ডি, ই এবং কে ফ্যাট দ্রবণীয় ভিটামিন। ভিটামিন এ ত্বকের কোষ মেরামত করে ও কোলাজেন উৎপাদনকে স্থিতিশীল করে। এছাড়া অন্যান্য ফ্যাট-দ্রবণীয় ভিটামিন সূর্যের ক্ষতিকর রশ্মি থেকে ত্বককে রক্ষা করে। খাবারের তালিকায় স্যামন মাছ, অ্যাভোকাডো, আখরোট, ঘি, তিল, অলিভ অয়েল ইত্যাদি রাখলে বয়সের ছাপ সহজে পড়বে না।

মাছ

বলিরেখা কমাতে মাছ খাওয়া যেতে পারে।বলিরেখা, ব্রণ কমাতে ও রোগ-প্রতিরোধ স্যামন, সারদিন মাছ খেলে বেশ উপকার পাওয়া যায়। এগুলো ত্বক পুনর্গঠন ও ত্বকের বলিরেখা কমাতে সাহায্য করে।

অলিভওয়েল

অলিভওয়েলের মধ্যে ওমেগা তিন ফ্যাটি অ্যাসিড রয়েছে। পাশাপাশি রয়েছে আরো ভিটামিন ও পুষ্টি। আর এক্সট্রা ভারজিন অলিভ ওয়েলে (একধরনের অলিভওয়েল) রয়েছে ওলিক অ্যাসিড। এটি ত্বক আর্দ্র রাখে এবং বলিরেখা কমায়।

হলুদ

সুস্থ ও সুন্দর ত্বক ধরে রাখতে হলুদ বিশেষ ভূমিকা পালন করে।হলুদে রয়েছে অ্যান্টিঅক্সিডেন্ট উপাদান, যা স্বাস্থ্যকর ত্বক তৈরিতে হলুদ সাহায্য করে।