শনিবার, সেপ্টেম্বর ২৩, ২০২৩
প্রথম পাতা লেখক Posts by ড. সাবেরা চৌধুরী

ড. সাবেরা চৌধুরী

1 পোস্ট 0 মন্তব্য
ড. সাবেরা চৌধুরী, সিনিয়র গবেষক, সাউথ এশিয়ান স্টাডিজ, টরেন্টো বিশ্ববিদ্যালয়, কানাডা

Recent Posts

Most Popular

ক্ষুদ্র নৃগোষ্ঠীর ৫ টি ভাষায় পাঠ্যবই বিতরণ হলেও এসব ভাষা লিখতে ও পড়তে জানে এমন শিক্ষকের অভাবে সেগুলো পড়েই আছে। | ছবি: বিবিসি

ক্ষুদ্র নৃগোষ্ঠীর শিক্ষার্থীদের মাতৃভাষায় শিক্ষাদানের উদ্যোগ, বাস্তবতা ও বর্তমান অবস্থা

ক্ষুদ্র নৃগোষ্ঠীর মাতৃভাষা রক্ষায় দীর্ঘদিনের আন্দোলনের প্রেক্ষিতে বর্তমান সরকার চাকমা, মারমা, ত্রিপুরা, গারো ও সাদরি—এই পাঁচ ক্ষুদ্র নৃগোষ্ঠীর প্রাক-প্রাথমিকের শিশুদের মাতৃভাষায় পাঠদানের কার্যক্রম শুরু করে ২০১৭ সালে।
নালন্দা বিহার

শিক্ষাক্ষেত্রে ভারতীয় দর্শন এবং এর প্রভাব

স্বামী বিবেকানন্দের ভাষায় মানবাত্মার অন্তর্নিহিত উৎকর্ষর সার্বিক পরিস্ফূরণ ই-শিক্ষা। মহান শিক্ষাবিদ পেস্তালোজির মতে মানবাত্মার অন্তর্নিহিত শক্তির স্বাভাবিক মধুর ও প্রগতিশীল বিকাশই হলো শিক্ষা।  কবিগুরু রবীন্দ্রনাথ ঠাকুরের মতে অন্তরের আলোর সম্পদ শিক্ষা দ্বারা অর্জিত হয় শিক্ষা‌ কে একটি প্রক্রিয়া ধরা হলে শিক্ষা একটি নিরবচ্ছিন্ন জীবনব্যাপী প্রক্রিয়া যা দ্বারা মানুষ জ্ঞান অর্জনের মধ্য দিয়ে সার্বিক গুণের অধিকারী হয়।
সঙ্গীদের সাথে যুদ্ধের ময়দানে বখতিয়ার উদ্দিন মুহাম্মাদ বিন বখতিয়ার খলজি

ইতিহাসে ইখতিয়ার উদ্দিন মুহাম্মাদ বিন বখতিয়ার খলজি

ইখতিয়ার উদ্দিন মুহাম্মাদ বিন বখতিয়ার খলজি কে ছিলেন? বখতিয়ার খলজি কেন বিখ্যাত? বখতিয়ার খলজির বাংলা বিজয় কেমন ছিল? বখতিয়ার খলজির অবদান কী?
বিভূতিভূষণ বন্দ্যোপাধ্যায় ছিলেন একজন জনপ্রিয় ভারতীয় বাঙালি সাহিত্যিক।

জীবনী: বিভূতিভূষণ বন্দ্যোপাধ্যায়— ভারতীয় বাঙালি কথাসাহিত্যিক

১৯২১ খ্রিষ্টাব্দে (১৩২৮ বঙ্গাব্দ) প্রবাসী পত্রিকার মাঘ সংখ্যায় উপেক্ষিতা নামক গল্প প্রকাশের মধ্য দিয়ে বিভূতিভূষণ বন্দ্যোপাধ্যায়ের সাহিত্যিক জীবনের সূত্রপাত ঘটে।
বঙ্কিমচন্দ্র চট্টোপাধ্যায় ছিলেন উনিশ শতকের বিশিষ্ট বাঙালি ঔপন্যাসিক। বাংলা গদ্য ও উপন্যাসের বিকাশে তার অসীম অবদানের জন্যে তিনি বাংলা সাহিত্যের ইতিহাসে অমরত্ব লাভ করেছেন।

জীবনী: বঙ্কিমচন্দ্র চট্টোপাধ্যায়

সাহিত্যসম্রাট বঙ্কিমচন্দ্র চট্টোপাধ্যায়ের সাহিত্যচর্চা শুরু হয় ১৮৫২ খ্রিষ্টাব্দে, "সংবাদ প্রভাকর" পত্রিকায় কবিতা প্রকাশের মাধ্যমে। বাংলা ভাষায় প্রথম সার্থক উপন্যাস দুর্গেশনন্দিনী (১৮৬৫) তাঁর লেখা। তাঁর প্রথম কাব্যগ্রন্থ: ললিতা তথা মানস (১৮৫৬)।