স্বচ্ছ ভারত অভিযান কী, এর উদ্দেশ্য ও ইতিহাস

২০১৪ খ্রিষ্টাব্দের ১৫ই আগস্ট ভারতের স্বাধীনতা দিবসে ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী স্বচ্ছ ভারত অভিযানের ঘোষণা করেন এবং ঐ বছর ২রা অক্টোবর গান্ধী জয়ন্তী উপলক্ষে এই প্রকল্পের আনুষ্ঠানিক সূচনা করেন।

স্বচ্ছ ভারত অভিযান হলো ২০১৪ খ্রিষ্টাব্দে ভারত সরকার কর্তৃক প্রচলিত একটি জাতীয় প্রকল্প যার মাধ্যমে দেশের ৪০৪১ টি শহরের সড়ক এবং পরিকাঠামোকে পরিষ্করণের ব্যবস্থা করার পরিকল্পনা করা হয়েছে। ‘স্বচ্ছ ভারত অভিযান’-কে ইংরেজিতে ‘Swachh Bharat Mission’ এবং হিন্দিতে ‘स्वच्छ भारत अभियान’ লেখা ও বলা হয়। ২০১৪ খ্রিষ্টাব্দের ২রা অক্টোবর নয়া দিল্লির রাজঘাট সমাধি পরিসরে স্বচ্ছ ভারত প্রকল্পের আনুষ্ঠানিক সূচনা করা হয়, সেখানে ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী নিজেই রাস্তা পরিষ্কার করেন। সেই দিন এই প্রকল্পকে রূপায়িত করতে দেশের প্রায় ত্রিশ লক্ষ সরকারি কর্মচারী এবং ছাত্ররা অংশগ্রহণ করেন।

২০১৪ খ্রিষ্টাব্দের ১৫ই আগস্ট ভারতের স্বাধীনতা দিবসে ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী স্বচ্ছ ভারত অভিযানের ঘোষণা করেন এবং ঐ বছর ২রা অক্টোবর গান্ধী জয়ন্তী উপলক্ষে এই প্রকল্পের আনুষ্ঠানিক সূচনা করেন। এই দিন নয়া দিল্লির রাজঘাট সমাধি পরিসরে আয়োজিত একটি জনসভায় তার ভাষণে তিনি দেশের জনগণকে এই প্রকল্পে সামিল হওয়ার জন্য আবেদন করেন। পরে সেই দিনই তিনি মন্দির মার্গ পুলিশ স্টেশনের একটি গাড়ি রাখার স্থান এবং কনট প্লেসের নিকটে বাল্মীকি বস্তি পরিষ্কার করার কাজে স্বয়ং অংশগ্রহণ করেন। ভারতের রাষ্ট্রপতি প্রণব মুখোপাধ্যায় প্রতি ভারতীয়কে বছরে একশত ঘণ্টা এই প্রকল্পের জন্য ব্যয় করার অনুরোধ জানান।

স্বচ্ছ ভারত অভিযানে প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী

২০১৯ খ্রিষ্টাব্দের ২রা অক্টোবরে মহাত্মা গান্ধীর দেড়শততম জন্মবার্ষিকীর মধ্যে এই প্রকল্প সম্পন্ন করার লক্ষ্য নেওয়া হয়েছে। এই প্রকল্পের জন্য ₹৬২,০০০ কোটি (US$ ৮.৩৭ বিলিয়ন) অর্থ খরচ হবে বলে মনে করা হয়েছে। এই যোজনা সংকীর্ণ রাজনীতির উর্দ্ধে এবং জাতীয়তাবাদের দ্বারা অনুপ্রাণিত বলে বর্ণনা করা হয়েছে।

২০১৪ খ্রিষ্টাব্দের ২রা অক্টোবর রাষ্ট্রপতি ভবন থেকে ‘স্বচ্ছ ভারত দৌড়’ অনুষ্ঠিত হয়। ভারতের রাষ্ট্রপতি প্রণব মুখোপাধ্যায় পতাকা নেড়ে এই দৌড় শুরু করেন এবং প্রায় ১৫০০ জন মানুষ এতে অংশগ্রহণ করেন।

এ বিষয়ের আরও নিবন্ধ

কে২: বিশ্বের দ্বিতীয় সর্বোচ্চ পর্বতশৃঙ্গ

কে২ বা কেটু (K2) এভারেস্ট পর্বতের পর বিশ্বের দ্বিতীয় সর্বোচ্চ পর্বত শৃঙ্গ। সমুদ্রপৃষ্ঠ থেকে এর উচ্চতা ৮,৬১১ মিটার (২৮,২৫১ ফুট)। হিমালয় পর্বতমালার...

ভারতের কেন্দ্রশাসিত অঞ্চল: জম্মু ও কাশ্মীর

জম্মু ও কাশ্মীর ভারতের ৮টি কেন্দ্রশাসিত অঞ্চলের একটি, এটি ভারতীয় উপমহাদেশের উত্তর অংশে অবস্থিত এবং কাশ্মীরের বৃহত্তর অঞ্চলের অংশ, যা ১৯৪৭ সাল...

রাশিয়ার পারমাণবিক মহড়া ও শংকটাপূর্ণ যুদ্ধাবস্থা— পরিস্থিতির দায় কার?

রুশ প্রেসিডেন্ট ভ্লাদিমির পুতিন ইউক্রেন যুদ্ধে পারমাণবিক অস্ত্র ব্যবহারের হুমকি দিয়েছিলেন। চলতি মাসেই পারমাণবিক অস্ত্রের বড়ো ধরনের মহড়া চালাতে যাচ্ছে রাশিয়া। এর...

জাতিসংঘ মানবাধিকার কাউন্সিলে বাংলাদেশ, বৈশ্বিক দায় ও দায়িত্বশীলতা

জাতিসংঘ মানবাধিকার কাউন্সিলের নির্বাচনে নিরঙ্কুশ জয় পেয়েছে বাংলাদেশ। মানবাধিকার পরিষদে বাংলাদেশের এ জয়ের পথ মোটেই মসৃন ছিল না।  দেশের অভ্যন্তরীণ মানবাধিকার পরিস্থিতি...
আরও পড়তে পারেন

টপ্পা গান কী, টপ্পা গানের উৎপত্তি, বাংলায় টপ্পা গান ও এর বিশেষত্ব

টপ্পা গান এক ধরনের লোকিক গান বা লোকগীতি যা ভারত ও বাংলাদেশের বাংলা ভাষাভাষী মানুষের কাছে খুবই প্রিয়। এই টপ্পা গান বলতে...

রাষ্ট্রবিজ্ঞান বলতে কী বোঝায় এবং ভারতীয় উপমহাদেশে রাজনীতি বা রাষ্ট্রচিন্তা

রাষ্ট্রবিজ্ঞান (Political Science) সমাজবিজ্ঞানের একটি শাখাবিশেষ যেখানে পরিচালন প্রক্রিয়া, রাষ্ট্র, সরকার এবং রাজনীতি সম্পর্কীয় বিষয়াবলী নিয়ে আলোকপাত করা হয়।  এরিস্টটল রাষ্ট্রবিজ্ঞানকে রাষ্ট্র...

গণতন্ত্রের সংজ্ঞা কী বা গণতন্ত্র বলতে কী বোঝায়

গণতন্ত্র বলতে কোনো জাতিরাষ্ট্রের অথবা কোনো সংগঠনের এমন একটি শাসনব্যবস্থাকে বা পরিচালনাব্যবস্থাকে বোঝায় যেখানে নীতিনির্ধারণ বা সরকারি প্রতিনিধি নির্বাচনের ক্ষেত্রে প্রত্যেক নাগরিক...

সমাজতন্ত্র কী? সমাজতন্ত্রের উৎপত্তি, ইতিহাস, বৈশিষ্ট্য, সুবিধা, অসুবিধা ও অর্থনীতি

সোভিয়েত ইউনিয়নে সমাজতান্ত্রিক রাষ্ট্র কায়েম করা হয়েছিল ১৯১৭ সালে। সমাজতন্ত্রে বৈরি শ্রেণি নেই, কেননা কলকারখানা, ভূমি, সবই সমাজতান্ত্রিক রাষ্ট্রের সম্পত্তি। সমাজতন্ত্রে শ্রেণি...

জীবনী: সৈয়দ ইসমাইল হোসেন সিরাজী

সৈয়দ ইসমাইল হোসেন সিরাজী ছিলেন একজন বাঙালি লেখক ও কবি। তিনি উনিশ ও বিশ শতকে বাঙালি মুসলিম পুনর্জাগরণের প্রবক্তাদের একজন। সিরাজী মুসলিমদের...

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here