মঙ্গলবার, মে ২৪, ২০২২

গাঠনিক পদ্ধতি কাকে বলে? গাঠনিক পদ্ধতির বৈশিষ্ট্য, সুবিধা, অসুবিধা কী কী?

মৌখিকের চেয়ে লেখার ক্ষেত্রে গাঠনিক পদ্ধতি বেশি উপযুক্ত।

গাঠনিক পদ্ধতিতে বলা হয় বিলুপ্তপ্রায় শিক্ষাদান পদ্ধতি। সনাতন পদ্ধতির এই শিখন পদ্ধতিটি পূর্বে বহুলভাবে ব্যবহৃত হলেও আধুনিক শিক্ষাবিদরা শ্রেণিকক্ষে এর ব্যবহারের পরামর্শ খুব কমই দেন। তবে একজন শিক্ষকের জন্য শিক্ষাদানের বা শিখন-শেখানো কার্যক্রমের সকল পদ্ধতি সম্পর্কেই ধারণা থাকা প্রয়োজন। এই নিবন্ধে গাঠনিক পদ্ধতি কাকে বলে বা গাঠনিক পদ্ধতির সংজ্ঞা, বৈশিষ্ট্য, সুবিধা এবং অসুবিধা নিয়ে আলোচনা করা হয়েছে।

গাঠনিক পদ্ধতি (Constructive Teaching Method)

বিক্ষিপ্তভাবে কোনো কিছু না শিখিয়ে গঠনমূলক কার্যক্রমের মাধ্যমে শেখানোর পদ্ধতিকে গাঠনিক পদ্ধতি বলে। গাঠনিক পদ্ধতি ভাষা শিক্ষার ক্ষেত্রে কার্যকরী পদ্ধতি তবে সময় বেশি লাগে। গাঠনিক পদ্ধতি হলো দীর্ঘমেয়াদি পদ্ধতি।

বাক্য গঠনে ভাষা উপস্থাপনের ক্ষেত্রে সযত্নে পর্যায়ক্রমে গাঠনিক পদ্ধতি প্রয়োগ করা হয়। বিক্ষিপ্তভাবে ভাষা না শিখিয়ে গঠনমূলক কার্যক্রমের মাধ্যমে ভাষা শেখানোর জন্য গাঠনিক পদ্ধতি ব্যবহার করা হয়। শব্দ শিখিয়ে একটি শব্দের বিভিন্ন ব্যবহার এবং সরল বাক্য শিখিয়ে ধীরে ধীরে জটিল বাক্য এবং যৌগিক বাক্যে শব্দের প্রয়োগ এই পদ্ধতিতে শেখানো হয়। এ ভাবে গঠনমূলক পদ্ধতি ভাষা শিক্ষার ক্ষেত্রে একসময়ে যথেষ্ট কার্যকর ছিল। ভাষাকে ব্যাকরণগত, উচ্চারণগত ও মৌখিক দক্ষতার মাধ্যমে উপস্থাপনের চেষ্টা এই পদ্ধতিতে করা হয়।

মৌখিকের চেয়ে লেখার ক্ষেত্রে গাঠনিক পদ্ধতি বেশি উপযুক্ত।

গাঠনিক পদ্ধতির বৈশিষ্ট্য

  • মডেলিং (Modeling): জটিল বিষয়সমূহকে অভিনয় করে সহজভাবে উপস্থাপন করা হয় এবং শিক্ষার্থীদেরকে সে বিষয়টি অনুকরণ করে উপস্থাপনের উপযুক্ত করে গড়ে তোলা হয়।
  • কোচিং (Coaching): শিক্ষার্থীর সবল ও দুর্বল দিক চিহ্নিত করে শিক্ষার্থীর শিখনফল অর্জনে সহযোগিতায় সদা প্রস্তুত থাকেন শিক্ষক।
  • কাঠামোগত এবং ধারণাগত সহায়তা (Scaffolding and fading): শিক্ষার্থী যে সব বিষয়ে পূর্ণাঙ্গ ধারণা পায়নি বা নিজের চেষ্টায় তা অর্জন করতে পারেনি শিক্ষক সে সব বিষয়ে সহায়তা করবেন এবং পর্যায়ক্রমে তার সহায়তা কমিয়ে-কমিয়ে এক সময় প্রত্যাহার করে নেবেন।
  • কথায় উপস্থাপন (Articulation): একে কেউ বলেছেন ‘বিন্যাস’। এর অর্থ হলো: শিক্ষার্থীগণ তাদের ধারণা, চিন্তা এবং সমাধানগুলোকে সুবিন্যস্ত ভাবে উপস্থাপন করবে।
  • প্রতিফলন (Reflection): শিক্ষার্থীরা তাদের বিষয়বস্তুর ধারণা বা সমাধানসমূহ অন্যান্য সহপাঠীদের কাজের সাথে তুলনা করবে।
  • সহযোগিতা (Collaboration): শিক্ষার্থী অন্যান্য শিক্ষার্থীদের সাথে পারস্পরিক সহযোগিতা করবেন।
  • সংযুক্তি (Connection): শিক্ষার্থীর অর্জিত শিখনফল পূর্ব জ্ঞান বা অভিজ্ঞতার সাথে সংযুক্তি ঘটাবে।
  • উদ্দেশ্যপূর্ণতা (Goal orientation): শিক্ষার্থীরা কোনো বিষয়বস্তু শিখনের উদ্দেশ্য সম্পর্কে পরিষ্কার ধারণা পাবে এবং যখনই সম্ভব শিক্ষার্থী তার শিখন প্রক্রিয়ার সাথে উদ্দেশ্যের সংযোগ ঘটানোর প্রচেষ্টা চালাবে।

গাঠনিক পদ্ধতির সুবিধা

গাঠনিক পদ্ধতির সুবিধা সম্পর্কে খুব বেশি বলার প্রয়োজন পড়ে না; তবে সম্যক উপলব্ধির পক্ষেকতিপয় বৈশিষ্ট্যের তালিকা করা যেতে পারে: 

  • শিক্ষার্থী কেন্দ্রিক শিক্ষণ পদ্ধতি হিসেবে গাঠনিক পদ্ধতি প্রয়োগের বিষয়টি বর্তমানে শিক্ষা ব্যবস্থায় আর্বিভূত হয়েছে।
  • পর্যায়ক্রমে ও সযত্নে এই পদ্ধতি প্রয়োগ করা হয় বলে এর কার্যফল প্রত্যক্ষ করার সুযোগ থাকে।
  • শিক্ষা গবেষকদের মতে গঠনমূলক (constructive) শিক্ষাদান পদ্ধতি অন্যান্য শিক্ষাদান পদ্ধতির চেয়ে বেশি শিক্ষার্থী কেন্দ্রিক।
  • এই পদ্ধতি অনুসৃত হলে শিক্ষার্থী মুক্তচিন্তা করতে পারবে এবং বিভিন্ন ধরনের কার্যক্রমে অংশগ্রহণ করে শিক্ষা প্রক্রিয়ার সাথে নিজেকে সম্পৃক্ত করতে পারবে।

গাঠনিক পদ্ধতির অসুবিধা বা সমস্যা

  • গাঠনিক পদ্ধতির সবচেয়ে বড়ো অসুবিধা হলো এটি দীর্ঘ মেয়াদী পদ্ধতি।
  • প্রতিটি শিক্ষার্থীর ক্ষেত্রে বিশেষ যত্ন ও সময় নিয়ে এটি প্রয়োগ করতে হয় বলে সকল শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের অবস্থা ও অবকাঠামোতে এই পদ্ধতি কার্যকর হতে পারে না।
  • বর্তমান প্রগতি আর প্রযুক্তির যুগে যেখানে উন্নততর পদ্ধতি অধিকতর ফল-প্রদায়ী হিসেবে সমাদৃত ও অনুসৃত হচ্ছে সেখানে গাঠনিক পদ্ধতির প্রলম্বন সমর্থন ও চর্চা লাভ করে না।
  • গাঠনিক পদ্ধতি মূলত যেখানে সনাতন পদ্ধতি রূপে সমধিক পরিচিত সেখানে ‘শিক্ষার্থী কেন্দ্রিক’ পদ্ধতি হিসেবে শিক্ষকদের কাছে এর পুরাতন ও আধুনিক ধারণার সংবৃত্তায়ন ঘটানো আপাতত বিভ্রান্তিকর মনে হতে পারে।

গাঠনিক পদ্ধতি যদিও অনেক ক্ষেত্রেই কার্যকরী তবে এতে সময় বেশি লাগে বলে এর ব্যবহার এখন হয় না বললেই চলে। তবুও এই গাঠনিক পদ্ধতি যদি কোনো শিক্ষক ভালোভাবে প্রয়োগ করতে পারেন তাহলে ভালো ফল আসতে পারে শিখনফল অর্জনে।

উত্তর দিন

আপনার মন্তব্য লিখুন
এখানে আপনার নাম লিখুন

এই বিভাগের অন্যান্য নিবন্ধ

সমাজমাধ্যম

সবচেয়ে জনপ্রিয়
সবচেয়ে জনপ্রিয়

শিক্ষা কী? শিক্ষার সংজ্ঞা, ধারণা এবং লক্ষ্য ও উদ্দেশ্য

শিক্ষা নিয়ে যারা কথা বলেছেন তাঁরা প্রত্যেকেই নিজের মতো করে ভেবে নিয়েছেন শিক্ষাকে, নিজের মতো করে সংজ্ঞা দিয়েছেন। শিক্ষাবীদ কিংবা মনিষী, যার সংজ্ঞাই দেখা হোক না কেন, খুব একটা সন্তুষ্ট হওয়া যায় না। তাই বলে যাদের হাত ধরে শিক্ষা ও শিক্ষাব্যবস্থা আজ পর্যন্ত এসেছে তাঁদের মতো শিক্ষাবিদ বা মনিষীদের বলে যাওয়া বা লিখে যাওয়া কথাগুলোকে এড়িয়ে চলাও সম্ভব নয়।

গবেষণা: গবেষণার সংজ্ঞা, ধারণা ও প্রকারভেদ

গবেষণা হলো কোনো কিছু সম্পর্কে জানার জন্য নিয়মতান্ত্রিক ও ধারাবাহিকভাবে অনুসন্ধান প্রক্রিয়া এবং একটি গবেষণা শুধু একটি প্রকারের মধ্যেই সীমাবদ্ধ না থেকে দুই বা ততোধিক প্রকারের হতে পারে

মূল্যবোধ কাকে বলে এবং মূল্যবোধের উৎস ও প্রকারভেদ কী?

মূল্যবোধ শব্দটির ইংরেজি প্রতিশব্দ হচ্ছে Value এটি গঠিত হয়েছে...

নেতা ও নেতৃত্ব কাকে বলে? একজন আদর্শ নেতার গুণাবলি কী?

নেতৃত্বের মূল কাজ হলো আওতাভুক্ত ব্যক্তিবর্গকে প্রভাবিত করা, যাতে তারা নেতার নির্দেশ মেনে নেয় ও সে মোতাবেক কাজ করে। 

শিক্ষা: অভীক্ষার সংজ্ঞা এবং বৈশিষ্ট্য

শিক্ষাক্ষেত্রে অভীক্ষা খুবই পরিচিত একটি পদ। যারা শিক্ষাবিজ্ঞান পড়েছেন...

ব্যবস্থাপনা কী? ব্যবস্থাপনার সংজ্ঞা, পরিধি এবং গুরুত্ব সম্পর্কে আলোচনা

মানব সভ্যতার শুরু থেকেই ব্যবস্থাপনা বিভিন্ন মানব সংগঠনের সাথে...

ইতিহাস কাকে বলে? ইতিহাসের বিষয়বস্তু, উপাদান এবং ইতিহাস পাঠের প্রয়োজনীয়তা কী?

ইতিহাস পাঠ করার আগে আমাদের প্রত্যেকেরই জানা প্রয়োজন ইতিহাস কী, ইতিহাসের প্রকৃতি কীরূপ; আবার পাঠ্য বিষয় হিসেবে ইতিহাসের ভূমিকা কী। পাশাপাশি কোনো নির্দিষ্ট কালের এবং নির্দিষ্ট দেশের ইতিহাস জানার সাথে সমসাময়িক প্রাকৃতিক অবস্থা এবং পরিবেশ সম্পর্কেও ধারণা নেওয়া প্রয়োজন। এই নিবন্ধে ইতিহাসের সংজ্ঞা, বিষয়বস্তু, উপাদান এবং প্রয়োজনীয়তা নিয়ে সংক্ষিপ্ত আলোচনা করা হলো।

ব্যবস্থাপনা কী? ব্যবস্থাপনার নীতি বা মূলনীতি কয়টি ও কী কী?

ব্যবস্থাপনা কী? ব্যবস্থাপনা একটি বাংলা শব্দ যার ইংরেজি প্রতিশব্দ হলো...

পরিবার কাকে বলে? পরিবারের সংজ্ঞা, ধারণা, প্রকারভেদ, কার্যাবলি ও গুরুত্ব কী?

আমরা জন্ম থেকেই পরিবারের সাথে পরিচিত। আমরা নিশ্চয়ই অবগত...

শিখন-শেখানো পদ্ধতি ও কৌশল

পাঠকে ফলপ্রসূ করার জন্য শিক্ষক পরিস্থিতি অনুসারে একাধিক পদ্ধতি ও কৌশলের সংমিশ্রণে নিজের মতো করে পাঠ পরিচালনা করতে পারেন। পাঠের সাফল্য নির্ভর করে শিক্ষকের বিচক্ষণতা এবং বিষয়জ্ঞান ও শিখন পদ্ধতির যথাযথ প্রয়োগের উপর।

জেন্ডার কাকে বলে? জেন্ডার সমতা, সাম্য, লেন্স এবং বৈষম্য কী?

সাধারণভাবে বা সঙ্কীর্ণ অর্থে জেন্ডার শব্দের অর্থ বলতে অনেকে...