রবিবার, মে ২৯, ২০২২

প্রদর্শন পদ্ধতি কাকে বলে? প্রদর্শন পদ্ধতির বৈশিষ্ট্য, সুবিধা ও অসুবিধা কী?

প্রদর্শন পদ্ধতি সম্পূর্ণভাবে ত্রুটিমুক্ত না হলেও শিখন শেখানো কার্যক্রমে এর গুরুত্ব খুব একটা কমেনি।

শ্রেণিকক্ষে ব্যবহৃত প্রদর্শন পদ্ধতি শিক্ষাদানের ক্ষেত্রে গুরুত্বপূর্ণ পদ্ধতিগুলোর অন্যতম। শিক্ষক শিক্ষার্থী উভয়ের সক্রিয় অংশগ্রহণে এ পদ্ধতি বিশেষ কার্যকর হয় বলে মনে করেন শিক্ষাবিদ শিক্ষামনোবজ্ঞানীরা। প্রদর্শন পদ্ধতিতে কোনো তাত্ত্বিক বিষয়কে ব্যবহারিক পরীক্ষণের মাধ্যমে শিক্ষার্থীদের সামনে উপস্থাপন সম্ভব। পরিকল্পনা মাফিক প্রয়োগ করতে পারলে প্রদর্শন পদ্ধতি ব্যবহারে শিক্ষক ও শিক্ষার্থী উভয়েই উপকৃত হতে পারেন। 

প্রদর্শন পদ্ধতি কী (What is Demonstration Method)

সনাতন পদ্ধতি হিসেবে প্রদর্শন পদ্ধতি ব্যবহৃত হয়। পাঠদানের যে পদ্ধতিতে পরিকল্পনা মতো প্রয়োজনীয় যন্ত্রপাতি বা উপকরণ ব্যবহার করে হাতেকলমে পরীক্ষা-নিরীক্ষার মাধ্যমে বা ব্যবহারিক ভাবে কোনো ঘটনা অথবা বিষয়বস্তু উপস্থাপন করে শিক্ষার্থীদের শিখনফল অর্জনের চেষ্টা করা হয় তাকে শিখন শেখানো কার্যক্রমে প্রদর্শন পদ্ধতি বলে। প্রদর্শন পদ্ধতি এমন একটি প্রক্রিয়া যাতে কোনো কিছু প্রদর্শন, বর্ণনাকরণ এবং অনুশীলনের সুযোগ বিদ্যমান।

প্রদর্শন পদ্ধতির বৈশিষ্ট্যাবলি

পাঠদানের প্রদর্শন পদ্ধতির বৈশিষ্ট্য নিচে উল্লেখ করা হলো-

  • পাঠদানের বিষয়টিকে সহজ করার জন্য হাতেকলমে করে দেখানো এবং পরীক্ষার সময় বৈশিষ্ট্যপূর্ণ অংশসমূহ শিক্ষার্থীর নিকট ব্যাখ্যা করা, ইত্যাদি প্রদর্শন পদ্ধতির প্রধান বৈশিষ্ট্য।
  • প্রদর্শন পদ্ধতি যদি শিক্ষককেন্দ্রিক
  • প্রদর্শন পদ্ধতি সনাতন পাঠদান পদ্ধতির অন্তর্গত।
  • সনাতন ও শিক্ষককেন্দ্রিক হলে পাঠদান সফল হয়।
  • প্রদর্শন পদ্ধতিতে শিক্ষার্থীরা সাধারণত নিষ্ক্রিয় শ্রোতা ও দর্শক (বক্তৃতা পদ্ধতির মতই) হিসেবে শ্রেণিকক্ষে উপস্থিত থাকলেও পাঠ্যবিষয় অনুধাবন করতে অপেক্ষাকৃত বেশি তৎপর হয়।
  • প্রদর্শন পদ্ধতির মাধ্যমে শিক্ষার্থীরা যে জ্ঞান আহরণ করে তা বাস্তব।

প্রদর্শন পদ্ধতির সুবিধা বা উপযোগিতা 

সনাতন পদ্ধতির অন্তর্গত হওয়া সত্ত্বেও এটি নিম্নলিখিত সুবিধাদি ও উপযোগিতার জন্য শিক্ষাদান ক্ষেত্রে ব্যবহৃত হয়-

  • প্রদর্শন পদ্ধতি একটি সক্রিয় পদ্ধতি বিশেষ; যদিও এই সক্রিয়তা শিক্ষকের বেলায় যতটা শিক্ষার্থীর বেলায় ততটা প্রযোজ্য নয়।
  • শিক্ষার্থীরা প্রদর্শন পদ্ধতির মাধ্যমে কিছুটা হলেও বাস্তব অভিজ্ঞতা সঞ্চয় করার সুযোগ পায়; কেননা এই পদ্ধতিতে মৌখিক বিবৃতির পাশাপাশি উপকরণের ব্যবহারের মাধ্যমে আলোচ্য বিষয় জীবন্ত করে শিশুর সামনে তুলে ধরার চেষ্টা করা হয়।
  • প্রদর্শন পদ্ধতির মাধ্যমে শিক্ষার্থী যে জ্ঞান আহরণ করে তা বাস্তব বটে।
  • যে সব বিদ্যালয়ে শিক্ষার্থীর সংখ্যানুপাতে যন্ত্রপাতি ও উপকরণের অভাব সেখানে এই প্রদর্শন পদ্ধতিতে অপেক্ষাকৃত স্বল্প সংখ্যক যন্ত্রপাতি ও শিক্ষোপকরণ ব্যবহার করে বেশি সংখ্যক শিক্ষার্থীকে শিক্ষা দেওয়া যায়।
  • প্রদর্শন পদ্ধতিতে শিক্ষার্থীদের প্রত্যেকটি অঙ্গপ্রত্যঙ্গ সক্রিয় রেখে পাঠ্য বিষয় অনুধাবনে সচেষ্ট হতে হয়।
  • প্রদর্শন পদ্ধতিতে শিক্ষকের বিবৃতি শ্রবণ ইন্দ্রিয় সজাগ রেখে শোনার প্রয়োজন হয়, দর্শন ইন্দ্রিয় সজাগ রেখে প্রদর্শিত উপকরণ দেখাতে হয় এবং শিক্ষকের বিবৃতি ও রূপকের মধ্যে সংযোগ স্থাপনের জন্য তাদের মনকেও রাখতে হয় সচেতন ও সক্রিয়।
  • শিক্ষার্থীদের আরো সক্রিয় করার জন্য শিক্ষক প্রাসঙ্গিক কাজে তাদের সহায়তা নিতে পারেন। যেমন: যন্ত্রপাতি সাজাতে, ধরতে, উপকরণ এগিয়ে দিতে প্রয়োজন মতো তিনি নিজের তদারকিতে ভাল ও বুদ্ধিমান শিক্ষার্থীদের দ্বারা ছোটো-খাটো ও সহজ প্রদর্শনের ব্যবস্থাও করতে পারেন।
  • শিক্ষার্থীদের মধ্যে অংশগ্রহণ ও কিছু করার একটা আত্মতৃপ্তি আসে এবং তারা শিখনে উৎসাহিত হয়।
  • প্রদর্শন পদ্ধতি শিক্ষার্থীর মনে শিক্ষার বিষয়বস্তুর একটা স্থায়ী আসন প্রতিষ্ঠিত করে। 
  • শিক্ষার্থী শিক্ষার বিষয়বস্তু সম্বন্ধে জ্ঞান আহরণের সময় শিক্ষকের বিবৃতি ও প্রদর্শিত উপকরণের মধ্যে একটা যোগসূত্র দেখতে পায়।
  • সকল শিক্ষার্থীর জন্য এটি একটি কার্যকর পদ্ধতি। 
  • সবার অংশগ্রহণ ও অনুশীলনের সুযোগ প্রদর্শন পদ্ধতিতে থাকে।
প্রদর্শন পদ্ধতি সম্পূর্ণভাবে ত্রুটিমুক্ত না হলেও শিখন শেখানো কার্যক্রমে এর গুরুত্ব খুব একটা কমেনি।
প্রদর্শন পদ্ধতি সম্পূর্ণভাবে ত্রুটিমুক্ত না হলেও শিখন শেখানো কার্যক্রমে এর গুরুত্ব খুব একটা কমেনি।

প্রদর্শন পদ্ধতির অসুবিধা বা সমস্যা 

উপরোল্লিখিত গুণাবলি থাকা সত্ত্বেও প্রদর্শন পদ্ধতি সম্পূর্ণচাবে দোষত্রুটি থেকে মুক্ত থাকতে পারেনি। নিচে প্রদর্শন পদ্ধতির কিছু অসুবিধা বা সমস্যা উল্লেখ করা হলো-

  • প্রদর্শন পদ্ধতির স্বাভাবিক ও প্রধান  বৈশিষ্ট্য শিক্ষককেন্দ্রিক পাঠদান হওয়ার কারণে ধীর শিক্ষার্থীরা সমস্যার মুখে পড়তে পারে।
  • যদি শিক্ষার উপকরণ অপ্রতুল হয় তবে এই পদ্ধতি সুষ্ঠুভাবে বাস্তবায়িত করা অধিকাংশ ক্ষেত্রেই সম্ভব হয় না।
  • উন্নয়নশীল দেশে শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানে স্বাভাবিক ভাবেই প্রত্যেক শ্রেণিতে বিপুল সংখ্যক শিক্ষার্থী থাকে বলে প্রদর্শন পদ্ধতিতে পাঠদান সমস্যা হয়ে ওঠে।
  • মৌখিক বিবৃতি, উপকরণ ব্যবহার এবং শ্রেণি শৃঙ্খলার প্রতি সজাগ দৃষ্টি- একাধারে এই তিন দায়িত্ব পালন করা শিক্ষকের পক্ষে কঠিন হয়ে ওঠে।
  • শিক্ষার্থীর নিজ হাতে কাজ করার সুযোগ এখানে খুব একটা নেই, তাই প্রদর্শন পদ্ধতিতে শিক্ষার্থীরা তেমন ব্যবহারিক দক্ষতা অর্জন করতে পারে না।
  • প্রদর্শন পদ্ধতিতে শিক্ষকের যথেষ্ট দক্ষতা ও প্রস্তুতির প্রয়োজন, যার সুযোগ সব সময় তাঁর থাকে না।
  • প্রশ্নোত্তর, আলোচনা ও পরীক্ষা কাজে সহায়তা দানে শুধু মেধাবী শিক্ষার্থীরাই এগিয়ে আসে, ফলে সাধারণ শিক্ষার্থীদের প্রতি দৃষ্টি এড়িয়ে যাওয়ার সম্ভাবনা থাকে।

প্রদর্শন পদ্ধতি একটি সনাতন ও শিক্ষককেন্দ্রিক পাঠদান পদ্ধতি হওয়ার পরেই আধুনিক যুগের পাঠদান বা শিখন-শেখানো কার্যক্রমে এর গুরুত্ব কমেনি। প্রদর্শন পদ্ধতির কিছু স্বাভাবিক ত্রুটি বা অসুবিধা বাদ দিলে একে একটি দুর্দান্ত শিখন-শেখানো পদ্ধতি হিসেবে ধরা যায়।

উত্তর দিন

আপনার মন্তব্য লিখুন
এখানে আপনার নাম লিখুন

এই বিভাগের অন্যান্য নিবন্ধ

সমাজমাধ্যম

সবচেয়ে জনপ্রিয়
সবচেয়ে জনপ্রিয়

শিক্ষা কী? শিক্ষার সংজ্ঞা, ধারণা এবং লক্ষ্য ও উদ্দেশ্য

শিক্ষা নিয়ে যারা কথা বলেছেন তাঁরা প্রত্যেকেই নিজের মতো করে ভেবে নিয়েছেন শিক্ষাকে, নিজের মতো করে সংজ্ঞা দিয়েছেন। শিক্ষাবীদ কিংবা মনিষী, যার সংজ্ঞাই দেখা হোক না কেন, খুব একটা সন্তুষ্ট হওয়া যায় না। তাই বলে যাদের হাত ধরে শিক্ষা ও শিক্ষাব্যবস্থা আজ পর্যন্ত এসেছে তাঁদের মতো শিক্ষাবিদ বা মনিষীদের বলে যাওয়া বা লিখে যাওয়া কথাগুলোকে এড়িয়ে চলাও সম্ভব নয়।

গবেষণা: গবেষণার সংজ্ঞা, ধারণা ও প্রকারভেদ

গবেষণা হলো কোনো কিছু সম্পর্কে জানার জন্য নিয়মতান্ত্রিক ও ধারাবাহিকভাবে অনুসন্ধান প্রক্রিয়া এবং একটি গবেষণা শুধু একটি প্রকারের মধ্যেই সীমাবদ্ধ না থেকে দুই বা ততোধিক প্রকারের হতে পারে

মূল্যবোধ কাকে বলে এবং মূল্যবোধের উৎস ও প্রকারভেদ কী?

মূল্যবোধ শব্দটির ইংরেজি প্রতিশব্দ হচ্ছে Value এটি গঠিত হয়েছে...

নেতা ও নেতৃত্ব কাকে বলে? একজন আদর্শ নেতার গুণাবলি কী?

নেতৃত্বের মূল কাজ হলো আওতাভুক্ত ব্যক্তিবর্গকে প্রভাবিত করা, যাতে তারা নেতার নির্দেশ মেনে নেয় ও সে মোতাবেক কাজ করে। 

শিক্ষা: অভীক্ষার সংজ্ঞা এবং বৈশিষ্ট্য

শিক্ষাক্ষেত্রে অভীক্ষা খুবই পরিচিত একটি পদ। যারা শিক্ষাবিজ্ঞান পড়েছেন...

ইতিহাস কাকে বলে? ইতিহাসের বিষয়বস্তু, উপাদান এবং ইতিহাস পাঠের প্রয়োজনীয়তা কী?

ইতিহাস পাঠ করার আগে আমাদের প্রত্যেকেরই জানা প্রয়োজন ইতিহাস কী, ইতিহাসের প্রকৃতি কীরূপ; আবার পাঠ্য বিষয় হিসেবে ইতিহাসের ভূমিকা কী। পাশাপাশি কোনো নির্দিষ্ট কালের এবং নির্দিষ্ট দেশের ইতিহাস জানার সাথে সমসাময়িক প্রাকৃতিক অবস্থা এবং পরিবেশ সম্পর্কেও ধারণা নেওয়া প্রয়োজন। এই নিবন্ধে ইতিহাসের সংজ্ঞা, বিষয়বস্তু, উপাদান এবং প্রয়োজনীয়তা নিয়ে সংক্ষিপ্ত আলোচনা করা হলো।

ব্যবস্থাপনা কী? ব্যবস্থাপনার সংজ্ঞা, পরিধি এবং গুরুত্ব সম্পর্কে আলোচনা

মানব সভ্যতার শুরু থেকেই ব্যবস্থাপনা বিভিন্ন মানব সংগঠনের সাথে...

পরিবার কাকে বলে? পরিবারের সংজ্ঞা, ধারণা, প্রকারভেদ, কার্যাবলি ও গুরুত্ব কী?

আমরা জন্ম থেকেই পরিবারের সাথে পরিচিত। আমরা নিশ্চয়ই অবগত...

ব্যবস্থাপনা কী? ব্যবস্থাপনার নীতি বা মূলনীতি কয়টি ও কী কী?

ব্যবস্থাপনা কী? ব্যবস্থাপনা একটি বাংলা শব্দ যার ইংরেজি প্রতিশব্দ হলো...

শিখন-শেখানো পদ্ধতি ও কৌশল

পাঠকে ফলপ্রসূ করার জন্য শিক্ষক পরিস্থিতি অনুসারে একাধিক পদ্ধতি ও কৌশলের সংমিশ্রণে নিজের মতো করে পাঠ পরিচালনা করতে পারেন। পাঠের সাফল্য নির্ভর করে শিক্ষকের বিচক্ষণতা এবং বিষয়জ্ঞান ও শিখন পদ্ধতির যথাযথ প্রয়োগের উপর।

জেন্ডার কাকে বলে? জেন্ডার সমতা, সাম্য, লেন্স এবং বৈষম্য কী?

সাধারণভাবে বা সঙ্কীর্ণ অর্থে জেন্ডার শব্দের অর্থ বলতে অনেকে...