অনুমিত সিদ্ধান্ত কাকে বলে? অনুমিত সিদ্ধান্তের প্রয়োজনীয়তা, প্রকারভেদ, পরীক্ষা এবং বৈশিষ্ট্য কী?

কোনো গবেষণা শুরু করার প্রাক্বালে গবেষণার বিষয়বস্তু বা সমস্যার ফলাফল বা কারণ সম্পর্কে যে অনুমিতসিদ্ধান্ত গৃহীত হয় তাকে ‘অনুমিত সিদ্ধান্ত’ বা ‘হাইপোথেসিস’ বলা হয়।

সাধারণভাবে জ্ঞানের উপর ভিত্তি করে অনুমিত সিদ্ধান্ত গৃহীত হয়। ইংরেজিতে একটি কথা আছে, ‘Believe in unseen is the precondition of seeking truth’। সাধারণ জ্ঞান বা অনুমানকে আশ্রয় করেই অনুমিত সিদ্ধান্ত রূপ লাভ করে। গবেষণা বা রিসার্চ (Research)-এ অনুমিত সিদ্ধান্ত খুবই গুরুত্বপূর্ণ। এখানে অনুমিত সিদ্ধান্ত কী বা অনুমিত সিদ্ধান্তের সংজ্ঞা, প্রয়োজনীয়তা, প্রকারভেদ, প্রমাণ; এবং অনুমিত সিদ্ধান্তের বৈশিষ্ট্য সম্পর্কে খুবই সংক্ষিপ্ত আলোচনা করা হয়েছে।

অনুমিত সিদ্ধান্ত কাকে বলে?

গবেষণার জন্য বিজ্ঞানীদের প্রধান যন্ত্র হলো অনুমিত সিদ্ধান্ত। উদ্ভুত কোন সমস্যা সম্পর্কে প্রাথমিকভাবে যে সম্ভাব্য বা পরীক্ষামূলক বা সিদ্ধান্ত প্রদান করা হয় তাকে অনুমিত সিদ্ধান্ত বলে। ‘অনুমিত সিদ্ধান্ত’র ইংরেজি হলো ‘হাইপোথিসিস’ (hypothesis)।

কোনো গবেষণা শুরু করার প্রাক্বালে গবেষণার বিষয়বস্তু বা সমস্যার ফলাফল বা কারণ সম্পর্কে যে অনুমিতসিদ্ধান্ত গৃহীত হয় তাকে ‘অনুমিত সিদ্ধান্ত’ বা ‘হাইপোথেসিস’ বলা হয়।

অনুমিত সিদ্ধান্তের প্রয়োজনীয়তা

গবেষণার জন্য এটি অতি প্রয়োজনীয় কেননা এটি গবেষণাকে নানাভাবে সাহায্য করে যেমন:

  • সমস্যা ব্যাখ্যা, সমস্যার প্রকৃতি বোঝা এবং সম্ভাব্য সমাধানের পথ পাওয়া।
  • অনুসন্ধানের অন্তঃনির্হিত যুক্তি সম্পর্কে ধারণা লাভ ও তথ্য সংগ্রহের পদ্ধতি এবং তথ্যের উৎস সম্পর্কে দিক নির্দেশনা লাভ।
  • এই নীতি সংঘটক হিসাবে কাজ করে এবং গবেষণার ক্ষেত্রকে সীমাবদ্ধতা দান করে।

অনুমিত সিদ্ধান্তের প্রকারভেদ 

অনুমিত সিদ্ধান্ত সাধারণত দুই প্রকার হয়ে থাকে, যথা:

  • হ্যাঁ সূচক অনুমিত সিদ্ধান্ত  (Positive Hypothesis)।

যেমন- “স্কুলে সংগীত শিল্পীদের শিক্ষা সাফল্য, যারা সঙ্গীত শিল্পী নয় তাদের চেয়ে ভালো”।

  • ‘না’ সূচক বা নাস্তি অনুমিত সিদ্ধান্ত (Negative Hypothesis)।

যেমন- “সংগীত শিল্পী এবং যারা সঙ্গীত শিল্পী নয় তাদের মধ্যে স্কুলে শিক্ষাগত সফলতার মধ্যে তেমন কোন পার্থক্য নেই”।

এই অনুমিত সিদ্ধান্তের সত্যাসত্য বা যথার্থতা নির্ণয়ের পরীক্ষা নিরীক্ষা, পর্যবেক্ষণ, তথ্য সংগ্রহ, বিন্যাস ও বিশ্লেষণ করে ফলাফল প্রকাশ করার পর ফলাফলের অনুমিত সিদ্ধান্তের তুলনা করা হয়।

অনুমিত সিদ্ধান্ত পরীক্ষা

অনুমিত সিদ্ধান্ত পরীক্ষা দুইভাবে করা যায়।

  • ১. প্রত্যক্ষ পদ্ধতি
  • ২. পরোক্ষ পদ্ধতি

১. অনুমিত সিদ্ধান্ত পরীক্ষার প্রত্যক্ষ পদ্ধতি

কোনো অনুমিত সিদ্ধান্ত সরাসরি পর্যবেক্ষণ করার মাধ্যমে পরীক্ষা করে সিদ্ধান্ত গ্রহণের উপযোগী হলে তাকে অনুমিত সিদ্ধান্ত পরীক্ষার প্রত্যক্ষ পদ্ধতি বলে।

উদাহরণ:

  • ভূ-পৃষ্ঠের একই স্থানে কত ঘণ্টা পর পর জোয়ার ভাটা হয়; এটি সরাসরি পর্যবেক্ষণ করা সম্ভব।
  • বৈদ্যুতিক সুইচ টিপলেও একটি ইস্ত্রি গরম হচ্ছে না। এখানে নানা রকম অনুমিত সিদ্ধান্ত হতে পারে বিদ্যুৎ না থাকা, ফিউজ জ্বলে যাওয়া, কিম্বা ইস্ত্রিটি নষ্টও হতে পারে, বৈদ্যুতিক সংযোগ না হওয়া ইত্যাদি।

একটির পর একটি পরীক্ষা করে তবেই না এর ত্রুটি ধরা পড়ে। এখানে যে-কোনো অনুমিত সিদ্ধান্ত প্রমাণ করা যায়।

২. অনুমিত সিদ্ধান্ত পরীক্ষার পরোক্ষ পদ্ধতি

যে অনুমিত সিদ্ধান্ত সরাসরি পরীক্ষার মাধ্যমে সিদ্ধান্ত গ্রহণ করা সম্ভব হয় সেক্ষেত্রে পরোক্ষভাবে পর্যবেক্ষণ করে পরীক্ষানিরীক্ষা করে সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়; একে অনুমিত সিদ্ধান্ত পরীক্ষার পরোক্ষ পদ্ধতি বলে।

বিমূর্ত বিষয় সম্বলিত সমস্যার ক্ষেত্রে প্রত্যক্ষ প্রমাণ পাওয়া যায় না। এখানে বিকল্প পদ্ধতি গ্রহণ করতে হয়।

উদাহরণ:

  • পুষ্টি ও বুদ্ধ্যাংকের মধ্যে ধনাত্মক সম্পর্ক আছে কিনা নির্ণয় করতে হবে। এখানে অনুমিত সিদ্ধান্ত গ্রহণ করা হলো- পুষ্টি ও বুদ্ধ্যাংকের মধ্যে সম্পর্ক আছে, এটি হলো হ্যাঁ সূচক অনুমান (Positive Hypothesis)। অথবা, পুষ্টি ও বুদ্ধ্যাংকের মধ্যে সম্পর্ক নেই অর্থাৎ না সূচক বা নাস্তি অনুমান (Negative Hypothesis)।
  • দুই জন অভিন্ন যমজ শিশুর একজনকে ধনাঢ্য পরিবেশে ও অন্যজনকে দরিদ্র পরিবেশে রাখা হলো। পাঁচ-সাত বছর পর দেখা গেল এদের বুদ্ধ্যাংকের পার্থক্য হয়েছে অর্থাৎ ফলাফল প্রথম অনুমিত সিদ্ধান্তের সঙ্গে সঙ্গতি পূর্ণ অর্থাৎ পুষ্টি বুদ্ধ্যাংক বাড়ায় এবং পুষ্টিহীনতা বুদ্ধ্যাংকের হ্রাস ঘটায়।
কোনো গবেষণা শুরু করার প্রাক্বালে গবেষণার বিষয়বস্তু বা সমস্যার ফলাফল বা কারণ সম্পর্কে যে অনুমিতসিদ্ধান্ত গৃহীত হয় তাকে অনুমিত সিদ্ধান্ত বা ‘হাইপোথেসিস’ বলা হয়।

অনুমিত সিদ্ধান্তের বৈশিষ্ট্য

  • অনুমিত সিদ্ধান্ত গ্রহণ করা হলে গবেষণা ফলাফল সম্পর্কে পূর্ব ধারণা পাওয়া যায়।
  • গবেষণার চূড়ান্ত ফলাফল সম্পর্কে সিদ্ধান্তে আসা সহজ হয়।
  • অনুমিত সিদ্ধান্ত গ্রহণ গবেষণার উপযোগী উৎস সম্পর্কে ধারণা প্রদান করে।
  • অনুমিত সিদ্ধান্ত উপাত্ত সংগ্রহ ও পক্রিয়াকরণ সহজতর করে।
  • অনুমিত সিদ্ধান্ত অসত্য এবং সত্য দুইভাবেই প্রমাণিত হতে পারে।
  • অনুমিত সিদ্ধান্ত গবেষণার চূড়ান্ত ফলাফল নয়।
  • অনুমিত সিদ্ধান্ত গ্রহণের পেছনে উপযুক্ত কারণ থাকতে হবে।
  • অনুমিত সিদ্ধান্ত বোধগম্য হতে হবে।

অনুমিত সিদ্ধান্ত সম্পর্কে আপনার ধারণা ও মতামত কী তা এখানে ব্যক্ত করতে পারেন।

আহমেদ মিন্টো
মিন্টো একজন ফ্রিল্যান্স লেখক এবং বিশ্লেষণ'র কন্ট্রিবিউটর।
এ বিষয়ের আরও নিবন্ধ

গবেষণা নিয়ে সাম্প্রতিক উপলব্ধি ও কিছু পরামর্শ

গবেষণা ছাড়া কোনো জাতি তার নিজ সম্পর্কে সঠিকভাবে জানতে পারে না; উদ্ভূত পরিস্থিতিতে করণীয় সম্পর্কে কিংকর্তব্যবিমূঢ় হয়ে পড়ে। করোনা ভাইরাস মহামারির প্রাক্কালে...

সাহিত্য পর্যালোচনা কাকে বলে? সাহিত্য পর্যালোচনার প্রয়োজনীয়তা ও উৎস কী?

সাধারণত একটি গবেষণা বা থিসিসের তাত্ত্বিক কাঠামো ও যৌক্তিকতা প্রদানের জন্য সাহিত্য পর্যালোচনা (Literature Review) করা হয়ে থাকে। সাহিত্য পর্যালোচনার মাধ্যমে গবেষক...

উচ্চশিক্ষা ও গবেষণার আন্তর্জাতিক মানদন্ডে বাংলাদেশের অবস্থান: সমস্যা ও সম্ভাবনা

- রাশিদুল হক১, মোহাম্মদ মহিউদ্দিন১, শেখ সেমন্তী২, তারান্নুম নাজ১,৩ ১বরেন্দ্র বিশ্ববিদ্যালয়, রাজশাহী; ২ইনস্টিটিউট অব এডুকেশন অ্যান্ড রিসার্চ (IER), রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়; ৩ফার্মেসি...

গবেষণায় নমুনা, নমুনায়ন এবং নমুনায়ন পদ্ধতি কী?

যে-কোনো গবেষণা কাজে (Research Work) নমুনায়ন (sampling) একটি গুরুত্বপূর্ণ পদ্ধতি এবং এই নমুনায়নের ব্যবহার গবেষণার বিভিন্ন ক্ষেত্রে ব্যাপকভাবে দেখা যায়। নমুনায়নের মাধ্যমে...
আরও পড়তে পারেন

রাষ্ট্রবিজ্ঞান বলতে কী বোঝায় এবং ভারতীয় উপমহাদেশে রাজনীতি বা রাষ্ট্রচিন্তা

রাষ্ট্রবিজ্ঞান (Political Science) সমাজবিজ্ঞানের একটি শাখাবিশেষ যেখানে পরিচালন প্রক্রিয়া, রাষ্ট্র, সরকার এবং রাজনীতি সম্পর্কীয় বিষয়াবলী নিয়ে আলোকপাত করা হয়।  এরিস্টটল রাষ্ট্রবিজ্ঞানকে রাষ্ট্র...

গণতন্ত্রের সংজ্ঞা কী বা গণতন্ত্র বলতে কী বোঝায়

গণতন্ত্র বলতে কোনো জাতিরাষ্ট্রের অথবা কোনো সংগঠনের এমন একটি শাসনব্যবস্থাকে বা পরিচালনাব্যবস্থাকে বোঝায় যেখানে নীতিনির্ধারণ বা সরকারি প্রতিনিধি নির্বাচনের ক্ষেত্রে প্রত্যেক নাগরিক...

সমাজতন্ত্র কী? সমাজতন্ত্রের উৎপত্তি, ইতিহাস, বৈশিষ্ট্য, সুবিধা, অসুবিধা ও অর্থনীতি

সোভিয়েত ইউনিয়নে সমাজতান্ত্রিক রাষ্ট্র কায়েম করা হয়েছিল ১৯১৭ সালে। সমাজতন্ত্রে বৈরি শ্রেণি নেই, কেননা কলকারখানা, ভূমি, সবই সমাজতান্ত্রিক রাষ্ট্রের সম্পত্তি। সমাজতন্ত্রে শ্রেণি...

জীবনী: সৈয়দ ইসমাইল হোসেন সিরাজী

সৈয়দ ইসমাইল হোসেন সিরাজী ছিলেন একজন বাঙালি লেখক ও কবি। তিনি উনিশ ও বিশ শতকে বাঙালি মুসলিম পুনর্জাগরণের প্রবক্তাদের একজন। সিরাজী মুসলিমদের...

জীবনী: সুভাষ মুখোপাধ্যায়

বাঙালি সম্প্রদায়ের মধ্যে খুবই জনপ্রিয় একটি হলো "ফুল ফুটুক না ফুটুক, আজ বসন্ত"; এই উক্তিটি কার জানেন? উক্তিটি পশ্চিমবঙ্গের কবি সুভাষ মুখোপাধ্যায়ের।...

2 COMMENTS

  1. খুব সুন্দর করে ও সহজভাবে হাইপোথিসিশ্ শব্দটির অর্থ বুঝিয়ে দিয়েছেন লেখক। এই রকম সহজ ভাষায় লেখা আরও বৈজ্ঞানিক আলোচনা শোনার জন্য আগহের সঙ্গে অপেক্ষায় রইলাম।
    ধন্যবাদ ভাই।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here