বুধবার, অক্টোবর ২৭, ২০২১

অর্থায়নের গুরুত্ব বা প্রয়োজনীয়তা

প্রতিষ্ঠানের ঝুঁকি হ্রাস এবং মুনাফা বৃদ্ধিতে অর্থায়নের যে ভূমিকা আছে সে ভূমিকা অন্য কিছু দিয়ে পুষিয়ে নেওয়া সম্ভব নয়।

অর্থায়নের গুরুত্ব কিংবা প্রয়োজনীয়তা নিয়ে আলোচনা করার শুরুতেই বলে নিতে হয় যে, অর্থায়ন ব্যতীত বর্তমানে যে-কোনো প্রতিষ্ঠানই অচল। তীব্র প্রতিযোগিতামূলক মুক্ত বাজারনীতিতে সঠিক এবং বুদ্ধিদীপ্ত অর্থায়ন বা ফিন্যান্সের বিকল্প নেই। এ কারণে প্রতিটি ব্যবসায় প্রতিষ্ঠান অত্যন্ত সতকর্তার সাথে অর্থায়ন পরিকল্পনা করে থাকে। অর্থায়ন পরিকল্পনার উপর একটি ব্যবসায় প্রতিষ্ঠানের লক্ষ্য অর্জন নির্ভরশীল। শুধু ব্যবসায় প্রতিষ্ঠান নয়, সকল ধরণের প্রতিষ্ঠান বিশেষ গুরুত্বের সাথে পরিকল্পনা অনুযায়ী অর্থায়ন করে থাকে। প্রতিষ্ঠানের ঝুঁকি হ্রাস এবং মুনাফা বৃদ্ধিতে অর্থায়নের যে ভূমিকা আছে সে ভূমিকা অন্য কিছু দিয়ে পুষিয়ে নেওয়া সম্ভব নয়।

নিম্নোক্ত বিষয়সমূহ অর্থায়ন ব্যবস্থাপনাকে আরো বেশি অর্থবহ করে তুলবে: 

  • মূলধন সংকট
  • উৎপাদনমুখী বিনিয়োগ
  • ব্যাংকিং ব্যবস্থা
  • শিক্ষিত উদ্যোক্তার অভাব
  • স্বল্প মেয়াদি তহবিলের ব্যবহার 

নিচে অর্থায়নের গুরুত্ব বা প্রয়োজনীয়তা সংক্ষেপে আলোচনা করা হলো: 

মূলধন সংকট

মূলধনের অভাবে যদি কোনো ব্যবসায় প্রতিষ্ঠান যথাসময়ে উপযুক্ত পরিমাণে কাঁচামাল ক্রয় করতে এবং পণ্য উৎপাদন কিংবা পুনরায় বিক্রয়ের উদ্দেশ্যে পণ্য বা সেবা ক্রয় করতে ব্যর্থ হয়, তাহলে প্রতিষ্ঠানটি অস্তিত্ব সংকটে পতিত হতে পারে। অর্থায়ন বা ফিন্যান্স (Finance) সংক্রান্ত ধারণা পরিকল্পনামাফিক যথাসময়ে প্রয়োজনীয় পরিমাণে অর্থ সংগ্রহ ও তার যথার্থ ব্যবহারে সহায়তা করে। 

উৎপাদনমুখী বিনিয়োগ

অর্থায়নবিষয়ক জ্ঞান একজন ব্যবসায়ী বা ব্যবস্থাপককে বিনিয়োগের ক্ষেত্র বেছে নিয়ে সাহায্য করে। বিভিন্ন প্রকল্পের মধ্যে ভবিষ্যৎ আয় ও ব্যয়ের সম্ভাব্যতা বিশ্লেষণ করে সিদ্ধান্ত নেয় ব্যবসায়ী বা ব্যবস্থাপক। এই ধরনের লাভজনক বিনিয়োগ কারবারটির জন্য যেমন অর্থবহ, তেমন সারা দেশের অর্থনৈতিক উন্নয়নের জন্যও বিশেষ গুরত্বপূর্ণ।

ব্যাংকিং ব্যবস্থা

উপরন্তু উন্নত বিশ্বের মতো আমাদের আর্থিক প্রতিষ্ঠানগুলো যথেষ্ট সুসংগঠিত নয় বলে ঋণের জন্য আবেদন করলেও প্রত্যাশিত সময়ের মধ্যে ঋণ পাওয়া যায় না। অনেক সময় ব্যাংক ঋণের বিপরীতে যে সম্পত্তি বন্ধক রাখতে হয়, তার অপ্রতুলতার কারণে ব্যাংক ঋণ উপযুক্ত সময়ে ও যথার্থ পরিমাণে পাওয়া যায় না। ফলে ব্যবসায়ীদের এ অর্থসংকট হতে উদ্ভূত সমস্যা মোকাবিলা করার জন্য খুবই পরিকল্পিতভাবে অর্থের সংস্থান করতে হয় এবং সঠিক বিনিয়োগ সিদ্ধান্তের মাধ্যমে অর্থের লাভজনক ব্যবহার করার প্রয়োজন হয়। সঠিক আর্থিক পরিকল্পনা ও ব্যবস্থাপনা ব্যবসায়ীদের এ ধরনের সমস্যা পূর্বানুমান করতে সাহায্য করে এবং যেসব পদ্ধতিতে তা মোকাবিলা করা যায় তার ধারণা দেয়। (তাজুল ইসলাম ও মো. মিজানুর রহমান, ফিন্যান্স ও ব্যাংকিং, বাউবি)

শিক্ষিত উদ্যোক্তার অভাব

প্রতিষ্ঠানের উদ্যোক্তারা স্বল্পশিক্ষিত হলে তারা একটি দীর্ঘমেয়াদি পরিকল্পনার মাধ্যমে অর্থায়ন কার্যক্রম পরিচালনা করতে বেশিরভাগ সময়ই সক্ষম হয় না। অর্থায়ন ব্যবস্থাপনাবিষয়ক জ্ঞান থাকলে সহজেই একজন ব্যবসায়ী পরিকল্পনামাফিক স্বল্পমূল্যে প্রয়োজনীয় পরিমাণ অর্থ সংস্থান করে তার সঠিক বিনিয়োগের মাধ্যমে ব্যবসা পরিচালনা করে পর্যাপ্ত মুনাফা অর্জন করতে পারে। 

স্বল্প মেয়াদি তহবিলের ব্যবহার

একটি ব্যবসায় প্রতিষ্ঠানকে সুষ্ঠুভাবে পরিচালনার জন্য দীর্ঘমেয়াদি তহবিলের সাথে সাথে স্বল্পমেয়াদি তহবিলেরও প্রয়োজন হয়। সকল চলতি খরচের পরিমাণ নির্ধারন ও সিদ্ধান্ত গ্রহণে স্বল্পমেয়াদি তহবিলের ব্যবহার হয়ে থাকে।

জারিন তাসনিম
জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থী এবং স্বাধীন লেখক।

উত্তর দিন

আপনার মন্তব্য লিখুন
এখানে আপনার নাম লিখুন

এই বিভাগের সাম্প্রতিক নিবন্ধ