বুধবার, ডিসেম্বর ১, ২০২১

HTTPS-only মোড গুগল ক্রোম ব্রাউজারকে আরও নিরাপদ ও সুরক্ষিত করবে

HTTPS-only হলো ইন্টারনেট ব্রাউজারের এমন একটি ফিচার, যার মাধ্যমে ব্যবহারকারীদের নিরাপত্তা পুরোপুরিভাবে নিশ্চিত করে ইন্টারনেটের বা ওয়েবে ব্যবহারিকারীদের বিচরণ আরও মসৃণ ও নিরাপদ করবে

শোনা যাচ্ছে গুগল ক্রোম (Google Chrome) ব্রাউজারে HTTPS-only নামের একটি নতুন ফিচার যোগ করা হবে। গুগল এলএলসি (Google LLC) চাচ্ছে তাদের পণ্য ক্রোম যারা ব্যবহার করছেন তাদের ব্রাউজিংকে আরও নিরাপদ সুরক্ষিত করতে।

এই নিবন্ধে আমাদের আলোচনার বিষয় হলো এই HTTPS-only মোড সম্পর্কে। তবের আগে ইন্টারনেট ব্রাউজার কী, সে নিয়ে কিছু কথা বলা যেতে পারে।

ইন্টারনেট ব্রাউজার কী (What Is Internet Browser)

ইন্টারনেট ব্রাউজার হলো এমন একটি সফটওয়্যার যার মাধ্যমে একজন ব্যবহারকারী ইন্টারনেট জগতে বিচরণ করার সুযোগ পায়। ইন্টারনেট ব্রাউজারকে ওয়েব ব্রাউজারও (Web Browser) বলা হয়।

আমাদের কাছে কম্পিউটার বা স্মার্টফোন আছে, তাতে ইন্টারনেট সংযোগও আছে। কিন্তু ওই কম্পিউটার, স্মার্টফোন বা এ সংক্রান্ত অন্যান্য ডিভাইসে ইন্টারনেট ব্রাউজার না থাকলে ব্যবহারকারী ইন্টারনেট জগতে প্রবেশ করতে পারবে না।

কয়েকটি জনপ্রিয় ইন্টারনেট ব্রাউজার

বিগত কয়েক বছর ধরেই খুব জনপ্রিয় তিনটি ইন্টারনেট ব্রাউজার হলো গুগল ক্রোম (Google Chrome), মাইক্রোসফট এজ (Microsoft Edge) এবং মজিলা ফায়ারফক্স (Mozilla Firefox) ।

গুগল ক্রোম, মাইক্রোসফট এজ, মজিলা ফায়ারফক্স বা অন্য যে কোনো ইন্টারনেট ব্রাউজার বৈশিষ্ট্যগতভাবে এক। কিন্তু বৈশিষ্ট্যগতভাবে হলেও এগুলোর একেকটির আউটলুক, স্পিড, টুলস, ফিচার্স, টার্মস অ্যান্ড কন্ডিশনাস, এবং নিরাপত্তা ব্যবস্থা একে রকম হয়ে থাকে। এক্ষেত্রে ব্রাউজারগুলো যারা বাজারে এনেছেন তাঁরা বরাবরই বলে থাকেন যে, তাঁদের ব্রাউজারটিই সবচেয়ে ভালো এবং ব্যবহারকারীর চাহিদা মেটাতে সবচেয়ে উপযুক্ত।

তবে কোন ব্রাউজারটি ব্যবহারকারীর সকল চাহিদা মেটাতে সক্ষম, এরকম নিশ্চয়তা প্রদান করে এখনো নির্দিষ্ট কোনো ব্রাউজারের পক্ষে এখনো উত্তর আসেনি। কারও মতে গুগল ক্রোম ভালো, কেউ বলেন মাইক্রোসফট এজ ভালো আবার মজিলা ফায়ারফক্সের বিষয়েও ইতিবাচক উত্তর নেহায়েত কম নয়।

গুগল ক্রোম কি সেরা ইন্টারনেট ব্রাউজার?

এই সময়ে ইন্টারনেট জগতে সবথেকে প্রভাবশালী প্রতিষ্ঠান হলো গুগল এলএলসি (Google LLC)। গুগলের ব্যবহারকারী যেমন বেশি, তেমনই এর প্রতি মানুষের বিশ্বাসও বেশি।

আর ক্রোম ব্রাউজার যেহেতু গুগলের পণ্য সেহেতু মানুষ নির্দিধায় এটি ব্যবহার করছে। যেহেতু বেশিরভাগ মানুষ গুগল ক্রোম ব্যবহার করছে, তাই বলা যায় গুগল ক্রোম হলো ইন্টারনেট ব্রাউজারগুলোর সবচেয়ে সেরা বিকল্প। শুধু ব্যবহারকারীর সংখ্যা আমলে নিলেও গুগল ক্রোম সব থেকে এগিয়ে থাকবে। এক্ষেত্রে যুক্তি হলো- গুগল ক্রোম যদি সেরাই না হবে, তাহলে বেশিরভাগ মানুষ কেন এটি ব্যবহার করবে?

গুগল ক্রোম ব্রাউজারে নিরাপত্তা

বাজারের ইন্টারনেট ব্রাউজারগুলোর মধ্যে গুগল ক্রোম সবচেয়ে সেরা বিকল্প হিসেবে বিবেচিত হলেও অনেককেই বলতে দেখা গেছে যে, গুগল ক্রোম ব্যবহারকারীর নিরাপত্তা ঠিকভাবে দিতে পারছে না। গুগল ক্রোম নিরাপত্তা দিতে পারছে কি না, এই উত্তরটি খোঁজা আমার পক্ষে সম্ভব নয়। তবে বিভিন্ন ওয়বসাইট ও গবেষণা বলছে যে, গুগল ক্রোমের নিরাপত্তা ব্যবস্থা নেহায়েত কম সুরক্ষিত নয়। ওই সব রিপোর্ট বা গবেষণা থেকে  বলা যায়, গুগল ক্রোম নিশ্চয়ই উত্তম ব্রাউজার।

গুগল ক্রোম ব্রাউজারে যোগ হবে HTTPS-only মোড

আপাতত একটি উত্তম খবর হলো, গুগল ক্রোমের নিরাপত্তা ব্যবস্থা আরও উন্নত করতে নতুন একটি ফিচার যোগ করছে। নিরাপত্তা বাড়ানোর জন্য যোগ হতে চলা বিশেষ এই ফিচারটির নাম এইচটিটিপিএস-ওনলি বা HTTPS-only। ক্রোম ব্রাউজারে খুব দ্রুতই এটি সংযোজিত হবে।

HTTPS-only কী?

HTTPS-only হলো ইন্টারনেট ব্রাউজারের এমন একটি ফিচার, যার মাধ্যমে ব্যবহারকারীদের নিরাপত্তা পুরোপুরিভাবে নিশ্চিত করে ইন্টারনেটের বা ওয়েবে ব্যবহারিকারীদের বিচরণ আরও মসৃণ ও নিরাপদ করবে। ফলে ব্যবহারকারীদের তথ্য ও ডিভাইসের সুরক্ষা প্রায় শতভাগ নিশ্চিত করা যাবে বলে প্রযুক্তিবিদরা মনে করছেন।

Google Chrome- কবে HTTPS-only Mode সংযুক্ত হবে?

আগামী কয়েক মাসের মধ্যেই গুগল এলএলসি তাদের গুগল ক্রোম ব্রাউজারে এইচটিটিপিএস-অনলি মোড সংযোজন করবে বলে জানা গেছে। এই খবরটি প্রকাশ করেছে 9to5Google নামের একটি ওয়েবসাইটসহ বেশ কিছু তথ্যপ্রযুক্তি সম্পর্কিত ব্লগ। অন্তত সেপ্টেম্বর মাসের আগে এই HTTPS-only ফিচার প্রকাশ্যে আসার সম্ভবনা নেই।

HTTPS-only mode এর সুবিধা কী?

গুগলের নিজস্ব পণ্য গুগল ক্রোম ব্রাউজারে সংযুক্ত হতে চলা HTTPS-only ফিচারের সব থেকে বড়ো সুবিধা হলো এটি ব্যবহারকারীর পরিদর্শন (visit) করা যে কোনো ওয়েবসাইট সম্পূর্ণ সুরক্ষিত সংস্করণে উন্নিত করে এর রুপান্তর করে প্রদর্শন করতে সক্ষম। এর ফলে ঝুঁকিপূর্ণ কোনো ওয়েবসাইট বা ওয়েবপেইজ ভিজিট করলেও ব্যবহারকারী কোনো ক্ষতির মুখে পড়বে না, এমনই জানা যাচ্ছে। অবশ্য নির্দিষ্ট ওয়েবসাইটের নিরাপদ সংস্করণ উপলব্ধ থাকলেই কেবল অনিরাপদ সংস্করণ পাশ কাটিয়ে নিরাপদ সংস্করণ প্রদর্শন করতে পারবে এই ফিচার।

এখানে উপলব্ধ বা অ্যাভেইলেবল কথাটি আসার কারণ হলো- অনেক ওয়েবসাইটের নিরাপদ সংস্করণ থাকলেও ইচ্ছাকৃতভাবে অনিরাপদ সংস্করণ প্রদর্শন করে থাকে।

আমরা জানি, ইন্টারনেট ব্যবহারের ক্ষেত্রে প্রায়ই ব্যবহারকারীর ডিভাইস (কম্পিউটার, স্মার্টফোন, ট্যাবলেট ইত্যাদি) বিভিন্ন অসাধু প্রতিষ্ঠান ও হ্যাকারদের মাধ্যমে আক্রান্ত হয়ে থাকে।

অসাধু ব্যক্তি, প্রতিষ্ঠান বা সফটওয়্যারের মাধ্যমে ডিভাইস আক্রান্ত হলে, এতে যেমন ডিভাইস ক্ষতিগ্রস্ত হবার ভয় থাকে, তেমনই ব্যবহারকারীর গুরুত্বপূর্ণ তথ্যও বেহাত হবার সম্ভাবনা থাকে। আশা করা যাচ্ছে HTTPS-only mode সংযুক্ত হলে গুগল ক্রোম নামের ইন্টারনেট ব্রাউজারে ইন্টারনেট ব্রাউজিং আরও নিরাপদ হবে, সুরক্ষিত থাকবে ব্যবহারকারীর তথ্য ও ডিভাইস। এতে ব্যবহারকারীদের ভয় অনেকটাই কমবে। নিঃসন্দেহে HTTPS-only ফিচারের খবরটি বড্ড স্বস্তির জুগিয়েছে সবাইকে।
Mozilla Firefox ব্রাউজারে ইন্টারনেট ব্রাউজিং অনেকেই বেশি নিরাপদ বলে মানেন যেহেতু এই ব্রাউজারের (৮৩ ভার্শন) মধ্যে HTTPS-only মোডের ব্যবস্থা আছে। এই কারণে অনেকেই নিরাপদ ও ইন্টারনেটে সুরক্ষিত থেকে ব্রাউজিংয়ের জন্য এই ওপেন সোর্স ব্রাউজারটি ব্যবহার করে থাকেন। অবশ্য গুগল ক্রোমও HTTPS প্রোটোকল ছাড়া কোনো ওয়েবসাইটে প্রবেশ করলে সেখানে ‘অনিরাপদ ব্রাউজিং সংক্রান্ত বার্তা প্রদর্শন করে এবং ব্যবহারকারী ইচ্ছে করলে ওই বার্তা এড়িয়ে যেতে পারে’।

প্রশ্ন হলো- এখন পর্যন্ত গুগল ক্রোম এবং মজিলা ফায়ারফক্স ব্রাউজার দুইটির মধ্যে মজিলা ফায়ারফক্স সত্যিই কি বেশি নিরাপদ? ব্যবহারকারী হিসেবে আমি ফায়ারফক্সের চেয়ে ক্রোমকেই এগিয়ে রাখতে চাই।

নিরাপদ ওয়েবপেইজ প্রদর্শনে বাধ্য থাকবে

কোনো ব্যবহারকারী যখন ইন্টারনেট ব্যবহার করে তখন বিভিন্ন ক্ষেত্রে নিরাপদ থাকে না। নিরাপদ না থাকার অন্যতম কারণ হলো ওয়েবসাইটগুলোতে আসা পরিদর্শনকারী বা ভিজিটরদের সব সময় সুরক্ষিত বা নিরাপদ সংযোগ সরবরাহ করেনা।

ব্রাউজারে HTTPS-only mode সক্রিয় থাকলে বা অন করা থাকলে ওই সব অনিরাপদ ওয়েবসাইগুলো সকল পরিদর্শনকারীদের নিজ নিজ ওয়েওপেইজগুলোর সুরক্ষিত সংস্করণ সরবরাহ করতে বাধ্য থাকবে।

এতে পূর্বের HTTP ও HTTPS মোডে ডিভাইস বা তথ্যের নিরাপত্তা ও সুরক্ষার জন্য যে সকল সমস্যা দেখা যেত, এই HTTPS-only সংযুক্ত হলে এর নিরসন হবে বলেই জানা যাচ্ছে বিভিন্ন ওয়েবসাইটে তুলে ধরা পড়ে প্রতিবেদনে।

অনিরাপদ ওয়েবসাইটে প্রবেশের সুযোগ পাবেন ব্যবহারকারী

একজন ব্যবহারকারী যখন HTTPS-only মোড সক্রিয় থাকা অবস্থায় ইন্টারনেট ব্রাউজ করবে, তখন ব্যবহারকারী কোনো অসুরক্ষিত বা অনিরাপদ ওয়েবসাইটে প্রবেশের পূর্বে ব্রাউজারে সতর্কবার্তা দেখতে পাবেন। আর এতে অনিরাপদ বলে চিহ্নিত ওয়েবসাইটটি ওই ব্যবহারকারী সহজেই এড়িয়ে যাওয়ার সুযোগ পাবেন। কিন্তু অনিরাপদ হিসেবে চিহ্নিত ওয়েবসাইটে চাইলে প্রবেশ করতে পারবে। ওয়েবসাইটটি নিতান্তই দরকারী অথবা ব্যবহারকারীর কাছে বিশ্বস্ত মনে হলে সে ওই ব্রাউজারের সতর্কবার্তা এড়িয়ে যেতে পারবে বা উপেক্ষা করতে পারবে।

গুগল ক্রোমের কোন সংস্করণে HTTPS-only mode আসবে?

এই নিবন্ধটি লেখা পর্যন্ত গুগল (Google) সম্পূর্ণ পরীক্ষামূলকভাবে একটি গোপন টগল হিসেবে HTTPS-only mode ফিচারটি ব্যবহার করে এর কার্যকারিতা যাচাই করছে। ধারণা করা হচ্ছে Google Chrome 93 বা 94 সংস্করণে এই ফিচার প্রকাশ্যে আসবে।

HTTPS-only মোড কীভাবে চালু করতে হবে?

ব্যবহারকারী তাঁর নিজের ডিভাইসের ক্রোম ব্রাউজারে HTTPS-only চালু নিচের ধাপ অনুসরণ করতে পারেন –

  • প্রথমে chrome://flags এ যেতে হবে
  • #https-only-mode-setting লিখে সার্চ করতে হবে
  • এবার টগল করে সেটিং অ্যাকটিভ (Active) করতে হবে
  • এরপর Chrome Settings এ গিয়ে যথাক্রমে Security and Advanced অপশনে ক্লিক করে Always Use Secure Connections সেটিংসটি অ্যাকটিভ করতে হবে
উৎস9to5google
মু. মিজানুর রহমান মিজানhttps://www.mizanurrmizan.info
শিক্ষার্থী, মাস্টার অব এডুকেশন, সরকারি টিচার্স ট্রেনিং কলেজ, ঢাকা এবং স্বাধীন লেখক।

উত্তর দিন

আপনার মন্তব্য লিখুন
এখানে আপনার নাম লিখুন

এই বিভাগের সাম্প্রতিক নিবন্ধ